গাংনীর সাবেক ছাত্রলীগ নেতা উজ্জলকে যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী ঘোষণা

ছবি, রাজনীতি

এম চোখ ডট কম, গাংনী:
সর্বশেষ সম্মেলনের মাধ্যমে ২০০৪ সালে গাংনী উপজেলা যুবলীগের কমিটি গঠন করা হয়। সভাপতি নির্বাচিত হন মোশাররফ হোসেন আর সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশ। ত্রিবার্ষিক এই কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে প্রায় ১৪ বছর আগে। দুই দুইবার ওয়ার্ড পর্যায় থেকে কমিটি পুর্নগঠনের মাধ্যমে উপজেলা কমিটির সম্মেলন আয়োজনের জন্য জানানো হলেও সম্মেলনের অনুমতি মেলেনি। দীর্ঘ সময় ধরে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির নেতৃবৃন্দ দায়িত্ব পালন করায় ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ যুবলীগে প্রবেশের সুযোগ পাননি। ফলে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে সংগঠনটি। এ দাবি করে সংগঠনকে গতিশীল করতে সাম্প্রতিক সময়ে ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায় থেকে যুবলীগের কমিটি পুর্নগঠনের দাবি তোলেন। পাশাপাশি উপজেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে প্রচারণায় নামেন অনেকে। এরই অংশ হিসেবে গাংনী ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানভির ইসলাম উজ্জলকে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি পদে সম্ভাব্য প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে।
গাংনী উত্তরপাড়ার প্রগতি ক্লাবে শুক্রবার বিকেলে এক আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে তাকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়।
জাতীয় শ্রমিক লীগ গাংনী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও প্রগতি ক্লাব সভাপতি মিজানুর রহমান মজনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক তুষার ইমরান, মেহেরপুর জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের লাইন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি, গাংনী শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতালেব হোসেন, উপজেলা সৈনিক লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, পৌর যুবলীগ সদস্য তুহিন রেজা ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা চপলসহ নেতৃবৃন্দ।
তানভির হোসেন উজ্জল ২০০৩ সালে গাংনী ডিগ্রি কলেজ (বর্তমানে সরকারি কলেজ) শাখার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। চারদলীয় জোট সরকারের ওই সময়ে কলেজ ছাত্রলীগের বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের আন্দোলন সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছিলেন। এর প্রেক্ষিতে রাজনৈতিক কয়েকটি মিথ্যা মামলার শিকার হন তিনি। দলের ত্যাগী এই নেতাকে তাই যুবলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীরা।